পুরোনো স্মৃতি-শাহ আলমগীর

কবিতা

পুরোনো স্মৃতি

ছোট্র বেলায় যেতাম যখন
শিক্ষা প্রাংগনে,
মনে হত বন্দি হলাম লোহার বাধনে।
ভাবতাম বসেকেমন করে
যাব পালিয়ে,
মনের সুখেখেলারমাঝে যাব তলিয়ে ।
চুপটি করে পুকুর ঘাটে
ডুবতাম শুধু স্কু যাওয়ার ভয়ে ,
খুজেহয়রান জনে জনে সাড়াপাড়া গায়ে ।
জলের ফাকে উকি মেরে দেখতাম কে কে ডাকে !
মাস্টার মশাই বাটি হাতে
আসছে রাগে রাগে ।
উঠে তলায় ভয়ে ভয়ে মারতাম ভো দৌড় ,
খেলাধুলায় যেমন তেমন পড়াশোনায় চোর ।
জোরটি করে ঠিকই শেষে স্কুল যেত নিয়ে,
সারাবেলা লেখাপড়া আমি ভালো ছেলে।
টিফিন বেলায় ভাবতাম বসে কেমনে যাব বাড়ি,
আজকে আমার স্কুল ছুটি পড়াশোনায় আড়ি ।
হাতে জুতা বুকে বই দিতাম এক দৌড়,
পরের দিন খেতে হাতবকুনি মারধোর ।
তবুও যে কতদিন যেতাম পালিয়ে,
না খেয়ে পড়ে খেলার মাঝে থাকতাম হারিয়ে।
গেঞ্জি গায়ে প্যান্ট পড়ে মাথায় বেঁধে ঝুটি,
রোদ-বৃষ্টিতে অকারণে করতাম ছোটাছুটি।
যদি ফিরে পেতাম আবার আমার ছোট্টবেলা,
যেখানে ছিল না শাসন বারণ ছিল না শুধু খুশির মেলা।
যেতাম ভুলে আরো একবার নিজেই নিজেকে,
মিলিয়ে দিতাম দানা আবার মুক্ত আকাশে।
সবার চোখের আড়াল দিয়ে যেতাম হারিয়ে,
মনের সেই দুষ্টুমিটা যেত ছাড়িয়ে।
আজও খুব মনে পরে পুরনো সেই স্মৃতি,
জানি আর পাবোনা ফিরে হয়েছে যা ইতি ।

মোঃ শাহ আলম গীর
সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান
ও আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক
নবাবগঞ্জ উপজেলা, দিনাজপুর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *